আধুনিক জীবন যাপনের কারণে আমরা প্রায় প্রতিদিন অনেক ধরণের প্রক্রিয়াজাত খাবার ও ফাস্ট ফুড খেয়ে থাকি যা আমাদের শরীরের অনেক ক্ষতি সাধন করে। সাধারণত আমরা সকলেই কম বেশি এই ধরনের খাবার খাই শখ করে, বন্ধুদের সাথে বা বিভিন্ন অনুষ্ঠানে আর এগুলো আমদের অজান্তেই প্রতিনিয়ত লিভার কে ক্ষতিগ্রস্ত করছে। দীর্ঘদিন ধরে এরূপ খাবারগুলো খাওয়ার ফলে আমাদের লিভার ড্যামেজ হওয়ার মত ঘটনাও ঘটতে পারে যা সত্যিই ভীতির কারণ। তাই লিভার সুস্থ রাখতে ডিটক্স ওয়াটার এর ব্যবহার আমাদের বড় ধরনের ক্ষতি থেকে রক্ষা করতে পারে। অনিয়ন্ত্রিত খাদ্যাভ্যাসের কারণে আমাদের দেহে যে ক্ষতিকারক পদার্থ জমে তা আমরা ডিটক্স ওয়াটার পান করে বের করে দিতে পারি বা দেহকে খুব সহজেই ডিটক্সিফাইড করে নিতে পারি। নিম্নে লিভার সুস্থ রাখতে ডিটক্স ওয়াটার এর ৩টি অত্যন্ত কার্যকরী রেসিপি দেওয়া হলো।

শশা লেবুর ডিটক্স ওয়াটার

লিভার পরিস্কার ও সুস্থ রাখতে শশা ও লেবুর কার্যকরীতা অনেক বেশি। এই পানীয় যেমন স্বাদে সেরা তেমনি কাজেও অনন্য। শশায় বিদ্যমান ভিটামিন K, আঁশ ও পানি খুব দ্রুত লিভার ডিটক্সিফাইড করে। উপরন্তু লেবুর ভিটামিন সি ও বিভিন্ন এনজাইম লিভার কে পরিস্কার করে এবং সুস্থ ভাবে কাজ করে যেতে সহায়তা করে।

উপকরণ ও প্রস্তুত প্রণালী
শশা একটি, কুচি কুচি করে কেটে নিতে হবে।
লেবু একটি, টুকরো টুকরো করে কেটে বা চিপে রস করে নিন।
আধা লিটার বিশুদ্ধ পানি।

সব গুলো উপকরণ একটি পরিস্কার পাত্রে বা ডিটক্স জগে নিয়ে ভালো ভাবে মিশিয়ে নিন। ঠান্ডা করার জন্য ফ্রিজে রাখতে পারেন বা বরফ কুচি দিতে পারেন। আপনার সারা দিনের পানির চাহিদার সাথে কম বেশি এই ডিটক্স ওয়াটার পান করুন।

আপেল সিডার ভিনেগার ডিটক্স ওয়াটার

অন্যান্য ডিটক্স এ এই আপেল সিডার ভিনেগার এর মত কার্যকরী উপাদান খুব কম এ আছে। কারণ এর শক্তিশালী ডিটক্সিফাইড এজেন্ট একে অন্য সকল প্রাকৃতিক ডিটক্সিফাইড ওয়াটার থেকে এগিয়ে রেখেছে। দেহের স্বাস্থ্যকর পিএইচ এর মাত্রা বাড়াতে এর জুড়ি মেলা ভার।

উপকরণ ও প্রস্তুত প্রণালী
২ টেবিল চামচ আপেল সিডার ভিনেগার
২৫০ মিলি লিটার ঠান্ডা পানি।
১ টেবিল চামচ মধু।

আপেল সিডার ভিনেগার ডিটক্স ওয়াটার এর ভালো ফল পেতে উপকরণ গুলো ভালো ভাবে মিশ্রণ করে প্রতিদিন রাতে ঘুমানোর আগে পান করুন। আশা করি আপনার লিভার ডিটক্সিফাইড করতে এটি বিশেষ কাজে দিবে।

আরও পড়ুন – ওজন কমাতে ডিটক্স ওয়াটার

হলুদ ডিটক্স ওয়াটার

খুব প্রাচীন কাল থেকেই ওষুধ হিসাবে এই হলুদের ব্যবহার করা হয়। বিশেষ করে চীনের আয়ুর্বেদ ওষুধে এর ব্যবহার বেশ প্রাচীন কাল থেকেই। এতে আছে এন্টি ইনফ্লামেটরি এজেন্ট, এন্টি ওক্সিডন্ট, ক্যান্সার ও ডিপ্রেশানের বিরুদ্ধে কাজ করা সহ আরো অনেক উপকারী উপাদান। প্রতিদিন সকাল বেলা এই পানীয় পান করলে আপনার লিভার ভালো থাকবে।

উপকরণ ও প্রস্তুত প্রণালী
১/২ লেবুর রস
১/৪-১/২ টেবিল চামচ হলুদ গুরো
এক গ্লাস গরম পানি
আধা চামচ পরিমান মধু

অল্প আঁচে পানি ফুটিয়ে তার মাঝে হলুদ গুরো মিশিয়ে দশ মিনিট গরম করে নিন। চুলা থেকে নামিয়ে তার সাথে লেবুর রস ও প্রয়োজন মত মধু মিশিয়ে পান করুন। হলুদ গুরো যাতে তলানিতে জমে না যায় তা খেয়াল করে পান করুন আর এই সমস্যা এড়াতে আপনি শুকনো হলুদের টুকরো দিয়েও এই পানিয় তৈরি করতে পারেন।

আসলে মূল কথা হলো আমাদের অনিয়ন্ত্রিত খাদ্যাভ্যাস দ্বারা আমাদের লিভার ক্ষতিগ্রস্ত হয়। লিভার সুস্থ রাখতে ডিটক্স ওয়াটার পান করুন ও একটি সুন্দর খাদ্যাভ্যাস গড়ে তুলুন। এছাড়াও লিভার সুস্থ রাখতে প্রতিদিন সবুজ চা পান করার অভ্যাস করুন। প্রচুর পরিমানে পানি পান করুন। যত বেশি সম্ভব সবুজ শাকসবজি খাদ্য তালিকায় প্রতিদিন রাখুন আর বিশেষ করে লাল মাংস খাওয়া এড়িয়ে চলুন। আশা করি উল্লেখিত ডিটক্স ওয়াটার গুলো আপনার লিভার সুস্থ রাখতে সাহায্য করবে। এগুলো নিয়মিত পানে লিভার সংক্রান্ত অন্যান্য রোগ থেকেও রক্ষা পাবেন। শুধু তাই নয় এই ডিটক্স ওয়াটার আপনাকে ওজন কমাতেও সাহায্য করবে।

শেয়ার করুন সবার সাথেঃ

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *